রবিবার, ২৬ মে ২০২৪, ১১:৩১ পূর্বাহ্ন
নোটিশঃ
২৪ ঘন্টায় লাইভ খবর পেতে চোখ রাখুন প্রতিদিনের বাংলাদেশ ওয়েবসাইটে

নাসিরাবাদ কলেজের অধ্যক্ষকে গুলি করে হত্যার হুমকি, যুবলীগ নেতার বিরুদ্ধে থানায় জিডি 

Reporter Name / ৬ Time View
Update : শনিবার, ১১ মে, ২০২৪, ৭:৪৫ পূর্বাহ্ন

স্টাফ রিপোর্টার,ময়মনসিংহ:

ময়মনসিংহের ঐতিহ্যবাহী নাসিরাবাদ কলেজের অধ্যক্ষ আহমেদ শফিককে গুলি করে হত্যার হুমকির অভিযোগ উঠেছে যুবলীগ নেতা আখেরুল ইমামের বিরুদ্ধে। অভিযুক্ত আখেরুল ইমাম ময়মনসিংহ জেলা যুবলীগের যুগ্ম আহবায়ক।নেতা মঙ্গলবার (৭ মে) ভুক্তভোগী অধ্যক্ষ তার ফেসবুকে পোস্ট করে এ তথ্য জানান। একই সঙ্গে পোস্টে অধ্যক্ষ তার কক্ষের সিসিটিভির একটি ফুটেজের ভিডিও শেয়ার করেন।

অধ্যক্ষের এমন পোস্ট সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে আলোচনার সৃষ্টি করেছে। পোস্টে কলেজ অধ্যক্ষ তাকে হুমকি দেওয়ার জন্য ময়মনসিংহ জেলা যুবলীগের যুগ্ম আহবায়ক আখেরুল ইমাম (সোহাগ) কে অভিযুক্ত করেছেন। গত ৩০ এপ্রিল এ হুমকি দেওয়া হয় বলে অধ্যক্ষ জানান। ভুক্তভোগী অধ্যক্ষ আহমেদ শফিক জানান, নাসিরাবাদ কলেজের পরিচালনা কমিটি নিয়ে সম্প্রতি কিছুটা জটিলতার সৃষ্টি হয়। সম্প্রতি কলেজের সাধারণ শিক্ষার্থীরা এ বিষয়টি নিয়ে বিক্ষোভ করে। গত ৩০ এপ্রিল আখেরুল ইমাম সোহাগ আমার কার্যালয়ে গিয়ে শিক্ষার্থীদের আন্দোলনের পর আমি কি ব্যবস্থা নিয়েছি, তা জানতে চান। এক পর্যায়ে আমাকে গুলি করে মেরে পেলার হুমকি দেওয়া হয়।

অধ্যক্ষ অভিযোগ করে আরও বলেন, আখেরুল ইমাম সোহাগ নাসিরবাদ কলেজ ছাত্র সংসদের সাবেক জিএস। সোহাগ মাঝে মাঝেই কলেজের বিভিন্ন বিষয়ে অযাচিত হস্তক্ষেপ করেন। এর আগে ২০১৮ সালের ১৬ মে আখেরুল আমাকে অসম্মানজনক কথা বলেন এবং প্রাণনাশের হুমকি দেন। ওই ঘটনাতেও আমি ময়মনসিংহ কোতোয়ালি মডেল থানায় সাধারণ ডায়েরি করেছিলাম যার জিডি নং- ১৪৫৪।

ইতি পূর্বে  মো: বাছির উদ্দিন কামালের  কথা মত কলেজর গভর্নিং বডি গঠন করতে বলে। অন্যথায় আমার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহন করবে বলে আমাকে  হুমকি দেন।তাছাড়া কলেজের গভর্নিং বডি সংক্রান্ত নথিপত্র তারা আমার কাছে চায়। আমি পরবর্তীতে খুজে রাখবো বলে তাদেরকে জানানে বাছির উদ্দিন কামাল আমাকে এর জন্য জবাব দিতে হবে বলে হুমকি দেয়। এ বিষয়ে গত ৭ই ফেব্রুয়ারী ২০২৪ সালে কোতোয়ালি মডেল থানায় বাছির উদ্দিন কামাল বিরুদ্ধে সাধারণ ডায়রি করি যার জিডি নং ১৩৮৮।

আবার গত ৩০ এপ্রিল নাসিরাবাদ কলেজ সাবেক ছাত্র আখেরুল ইমাম সোহাগের নেতৃত্ব কলেজ ক্যাম্পাসে ৪০-৫০ বহিরাগত লোক নিয়ে আসে । পরে  পাঁচজন ব্যক্তি  আমার কার্যালয়ে প্রবেশ করে উদ্ধতপূর্ণ আচরণ করে এবং ভীতি হুমকি প্রদর্শণ করে। তাদের বিরুদ্ধে  কোতোয়ালি আরেকটি সাধারণ ডায়েরি করি যার জিডি নং -৩০৬০/২০২৪।

যা সিসিটিভি ক্যামেরা ভিডিও ফুটেজ আছে বলে জানান অধ্যক্ষ।অভিযুক্ত যুবলীগ নেতা আখেরুল ইমাম সোহাগে সাথে এ বিষয়ে জানান জন্য যোগাযোগ করার চেষ্টা যুবলীগ নেতার মোবাইল ফোন বন্ধ পাওয়া যায়।

ময়মনসিংহ কোতোয়ালি মডেল থানার ওসি মাঈন উদ্দিন বলেন, অধ্যক্ষের জিডি আমরা পেয়েছি। বিষয়টি আমরা তদন্ত করছি।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More News Of This Category
Developer Ruhul Amin